যৌবনের পরিচয়

Wed, 23 March, 2022 7:30 PM

মোঃ রাশেদুল ইসলাম (সানাবিয়া আম্মাহ ২য় বর্ষ)

মূলত যৌবন মানেই হল জীবন। আবার এভাবেও বলা যায় যে, জীবন মানেই হলো যৌবন। এই যৌবন জীবন নামক মরুর বুকে একখণ্ড মরুদ্যান। এটি হলো জীবন-ঋতুর বসন্ত। যুগ-জামানার ঝড়-ঝাপটার মুখে এক চিলতে ঝকঝকে হাসি। আমি যৌবন বলতে জীবনের সেই সময়কাল বুঝাচ্ছি, যা কর্মঠ ও শক্তিশালী। বেঁচে থাকার পেছনে যার সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য আছে। যা উন্নত আদর্শে বলীয়ান। জীবন যুদ্ধে একজন  লড়াকু  সৈনিক।

যৌবন হলো গভীর ভালোবাসা ও প্রচণ্ড সাহসিকতার নাম। সংস্কারের প্রতি যার রয়েছে প্রচণ্ড ঝোঁক। দেশ ও সমাজের জন্য নিজেকে  বিলিয়ে  দিতে  যা  সর্বদা  প্রস্তুত  থাকে। প্রগতি, উন্নতি, গতি ও প্রতীক্ষা হল এর নিদর্শন।

এই সব গুণাবলির প্রতি লক্ষ্য করে বলা যায় যে, যৌবন কোনো জন্ম সনদের কাগজের পরিচয়ে আবদ্ধ নয়। সে জন্যই যার অন্তর মৃত ও বিরান ভূমিতে পরিণত হয়েছে, যার উদ্দাম উৎসাহের নদীতে ভাটা নেমেছে এবং উচ্চ মনোবল হারিয়ে গেছে, সে বিশ বছর বয়সী হলেও তাকে বৃদ্ধ বলে গণ্য করা হবে। পক্ষান্তরে যার অন্তর সর্বদা তরতাজা, যার ভেতর সবসময় আশা-আকাঙ্ক্ষার ঝর্ণা ধারা বইতে থাকে, স্বপ্ন প্রত্যাশার সাগরে যে প্রতিনিয়ত সাঁতার কাটতে থাকে এবং বীরত্ব ও সাহসিকতাকে যে বুকে লালন করে, সেই হলো প্রকৃত পক্ষে যুবক। যদিও বার্ধক্য এসে চুল-দাড়িতে বাসা বাঁধে এবং বয়সের ভারে নুয়ে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.