আল কুরআন : মানবজাতির মুক্তির সনদ

Wed, 13 April, 2022 7:43 PM

আল কুরআন আল্লাহর কালাম ও তাঁর ঐশী বাণী। মহাগ্রন্থ আল-কুরআন বিশ্বের সর্বাধিক পঠিত গ্রন্থ। মানুষ কুরআন পাঠ করলে আল্লাহ নিকটতম বন্ধু হয়ে যায়। এই মহাগ্রন্থ আল-কুরআন জগতের মহান স্রষ্টা আল্লাহর পক্ষ থেকে অবতীর্ণ করা হয়েছে মানবজাতিকে মঙ্গল ও কল্যাণের দিকে আহবান এর জন্য। যা তিনি তাঁর সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ নবী হযরত মুহাম্মদ সা. এর উপর অবতীর্ণ করেছেন।

কুরআন আল্লাহর পক্ষ থেকে প্রেরিত চূড়ান্ত গ্রন্থ। এটা সকল মুসলমানের বিশ্বাস। আল-কুরআন  সকল  কল্যাণ  ও  মঙ্গলের  উৎস। এই গ্রন্থকে আল্লাহ তাআলা এমন কতক বৈশিষ্ট্যে বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত করেছেন, যা অন্য কোনো গ্রন্থে নেই। কুরআনের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো, অলৌকিকত্ব। পূর্বের নবী-রাসূলগণকে আল্লাহ অনেক মুজিযা দান করেছেন, যা ছিল সাময়িক। তৎকালীন লোকেরা এতে বিশ্বাস করত। কিন্তু পরবর্তী লোকেরা তা দেখেনি। শুধুমাত্র বর্ণনার মাধ্যমে শুনতো। কিন্তু আল্লাহ তাআলা হযরত মুহাম্মদ সা.কে অসংখ্য নিদর্শন ও মুজিযার পাশাপাশি চিরন্তন মুজিযা হিসেবে আল-কুরআন দান করেছেন। যেমন আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেছেন,

تَنْزِيْلُ الْكِتَابِ مِنَ اللّٰهِ الْعَزِيْزِ الْحَكِيْمِ

“এ কিতাব অবতীর্ণ হয়েছে পরম ক্ষমতাবান প্রজ্ঞাময় আল্লাহর পক্ষ থেকে” । (সূরা যুমার; আয়াত ১)

অন্য আয়াতে আল্লাহ বলেন,

تَنْزِيْلٌ مِّنْ حَكِيْمٍ حَمِيْدٍ

অর্থাৎ প্রশংসিত প্রজ্ঞাময় মহান সত্তার পক্ষ হতে অবতীর্ণ। (সূরা হামিম সাজদা; আয়াত ৪২)

Leave a Reply

Your email address will not be published.